কালোজাদু-পৃষ্ঠা-২১+২২

0Shares

৫৪) এক ধরনের আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স সফটওয়্যার আবিষ্কার এর চেষ্টা করছেন আমেরিকান করনেল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ।এটা দিয়ে ধরা যাবে যে ব্যাপারটা তাহলো আপনি যদি বাঙালি হয়ে চাইনিজ ভাষা লেখেন তবে আপনি যে বাঙালি সেটা ধরা যাবে ।  

৫৫) একটা অভিযোগ বা কথা প্রায়ই শোনা যায় দাদা নানাদের মুখে যে , আগের  মত খাবারে আর স্বাদ নেই , আমাদের সময়ের খাবারে ব্যাপক স্বাদ ছিল ।কথাটা আসলে বলা ভুল । কারন হল মানুষ জন্ম গ্রহন করে ০৯ থেকে ১০ হাজার স্বাদ কোরক নিয়ে ।এটা হলও একেবারে ছোটবেলার কথা ।আপনি এই যে ৪০ বা ৫০ বছর বয়ষে এসে অভিযোগ করছেন কোন কিছুতে আগের মত স্বাদ নেই , এখনকার জিনিষ ভেজাল এটার কারন হল আপনার স্বাদ কোরক গুলো বয়সের সাথে সাথে জিহ্ববা থেকে কমতে থাকে ।এ কারনে ছোটবেলাতে থেকে তরুন বয়ষ পর্যন্ত স্বাদ কোরক গুলো সম্পুর্ণ  থাকা এবং কার্যকরী তরতাজা থাকাতে যে কোন খাবারের স্বাদ আমরা ভালভাবে পাই । কিন্তু দেখা যায় একটা বয়সে এসে আমাদের জিহ্ববার এই স্বাদ কোরকগুলো কমে যেতে থাকে এবং কার্যকরীতা হারাতে থাকে , সে জন্য দাদা নানারা যখন যুবক থেকে বার্ধক্যে পৌছান তখন তারা এই অভিযোগ করেনে যে খাবারে আগের মত স্বাদ নেই ,আসলে খাবারের স্বাদ ঠিক আছে কিন্তু ওনাদের যে জিহ্ববার কোরক ক্ষতিগ্রস্ত বা বয়সের সাথে সাথে কমে গেছে সেটা ওনারা বা আমরা কেউ বুঝতে পারেননা ।

৫৬) আচ্ছা প্রায়শই আমরা শুনে থাকি জ্যোতিষ বিদ্যা , ভুত প্রেত , যাদু এগুলো একেবারে ডাহা ভুয়া ।কিন্তু ভুয়া বলুন আর যাই বলুন ঐতিহাসিক ভাবে এগুলো ০২-০৪ হাজার বছর ধরে মানুষের সাথে ব্যাপক ভাবে জড়িয়ে আছে ।এবং আপনি যত যুক্তিই দিননা কেন জ্যোতিষ বিদ্যার উপকার ভোগী আর আর ভূতের দর্শনধারী লোকের অভাব তো নেই বরং শতকরা হিসেবে বেশ ভাল সংখ্যাতে পাবেন আপনি এদের ।

(২১)

– পৃথিবীতে আপনি ভৌতিক যেমন অনেক বাস্তব উদাহরন পাবেন তেমনি জ্যোতিষ বানী অনেকের জীবনে ফলেছে এমন লোক আপনি সমাজের খেটে খাওয়া মানুষ থেকে শুরু করে সমাজের ধনী ও উচ্চ পর্যায়ের মানুষেও পাবেন ।এর পিছনে বৈজ্ঞানিক কোন যুক্তি থাকুক আর নাই থাকুক ।বৈজ্ঞানিক যুক্তি না থাকলেও ভাগ্য বিশ্বাস মানুষের মাঝে থাকবে ।পৃথিবীতে কিছু জিনিষ চিরকালই বিজ্ঞানের ব্যাখ্যার বাইরে থাকবে ।

৫৭) এই মহাবিশ্বের বয়স যতদিন আপনার বয়স ও ততদিন ,মানে মহাবিশ্ব যদি ১০০০ কোটি বছর বয়সের হয়ে থাকে তো আপনার বয়স ও তাই ।এটা কোন যুক্তিতে বলা হয় জানেন ? এটা বলা হয় এই যুক্তিতে যে আপনি বা আমি তো পৃথিবী বা মহাবিশ্বে বিদ্যমান ধাতু বা বস্তু দিয়ে তৈরি , আমাদের শরীর যেসব পদার্থ বা ধাতু দিয়ে তৈরি সেই সব পদার্থ , বা ব্যাকটেরিয়া ,বা ধাতু গুলো আমাদের শরীরে আসার আগে মহাবিশ্ব সৃষ্টি শুরু থেকেই তৈরি হয়েছে  ।সে জন্য আপনি বা আমি হলাম পদার্থের ভিন্ন অবস্থার রুপান্তর মাত্র , কিন্তু আমাদের দেহ তৈরির  কাঁচামাল ঠিকই মহাবিশ্ব সৃষ্টির সম পুরাতন , সেই হিসেবে আমাদের বয়স কম নয় !!! ।

৫৮) কালোজাদু আর বিজ্ঞান একই জিনিষ , বিজ্ঞান যদি অশিক্ষিত , বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিবিহীন মুনি ঋষিদের হাতে গিয়ে পড়ে আর তাদের ভিতর সীমাবদ্ধ থাকে তবে সেটা হয়ে যায় তন্ত্র ,মন্ত্র ,কাল যাদু । আর যদি বিজ্ঞান এর আবিষ্কার ল্যাব এ বসা ‌উচ্চশিক্ষিত ডিগ্রিধারী ব্যাক্তির দ্বারা আবিষ্কার হয়ে মানুষের কল্যানে ছড়িয়ে যায় তবে সেটা হয় বিজ্ঞানের আশীর্বাদ বা বিজ্ঞানের আবিষ্কার ।মুলত বিজ্ঞান আর কালজাদু তন্ত্র মন্ত্র সবই বিজ্ঞানের ভেরিয়েসন বা  রুপ , যদি সত্যিকারের কার্যকরী তন্ত্র মন্ত্র থাকে ।এই মূহূর্তে খেয়াল আসছেনা কিন্তু কোথায় যেন পড়েছিলাম ভারতের কোন এক উপজাতিরা কোন রকম শিক্ষাজ্ঞান ছাড়াই বংশপরষ্পরাতে প্রাপ্ত জ্ঞান দ্বারা নিখুতভাবে কাটা নাক জোড় লাগাতে পারতো । ধরুন আপনি এমন একটা শক্তির সন্ধান পেলেন যেটা পৃথিবীতে সবার অজানা , আপনি এটা যদি নিজের নামে পেটেন্ট করে বাণিজ্যিক উদ্দ্যেশ্যে ব্যবহার করেন তবে মোবাইল , কম্পিউটার , টেলিভিশন এর মত সারা পৃথিবীর মানুষ ব্যবহার করে উপকৃত হবে , সাথে আপনি হয়ে উঠবেন মানব ইতিহাসে অমর এবং আর্থিক ভাবে সম্পদশালী।

(২২)

পরবর্তী পৃষ্ঠা দেখুন

0Shares

Facebook Comments

error: Content is protected !!