কালোজাদু-পৃষ্ঠা-৮৩+৮৪

0Shares

         নদী শাসন করবার সব উপায় আছে কিন্তু বন্যা ঠেকাতে পারিনা, নদীভাঙন ঠিকই সময়মত হয়ে যায় সবাই চায় টাকা সমৃদ্ধ সুখের জীবন, কিন্তু শতকরা ০৫ জন ও সেই সোনার জীবন ধরতে পারেনা।কেমনে কেমনে সেই টাকার পিছনে ছোটা মানুষটার জীবন বার্ধ্যকে এসে যায় , ত্রিশ বছর ধরে খেটেও অবস্থা সেই এক রকমই আছে যখন উপলব্ধি করে তখন আর কিছু করার থাকেনা ।নিজের উপর আত্ববিশ্বাসী মানুষটি তখন হয়ে যায় ভাগ্যবিশ্বাসী। এই ঘটনাগুলোর পিছনে কারণ হিসেবে আপনি বিজ্ঞের  মত অনেক কিছু বলবেন, যুক্তি দেখাবেন কিন্তু কিছুতেই আপনি এই অদৃশ্য শক্তির তৎপরতা ঠকিয়ে রাখতে পারবেননা ।শিক্ষক হলেও সব ছাত্রকে আপনি ১০০ তে ৯০ পাবার মত তৈরি করতে পারবেননা। সব কথার শেষেও একটা কিছু থাকা, যুগে যুগে কালে কালে এই যে মানুষের হাতে থাকার পরও কিছুই হাতে নেই উপলব্ধি হওয়া,  সব কিছু শেষ হয়ে হয়ে যাবার পরেও কিছু একটা থাকা আর কারো উপস্থিতি থাকার নামই সর্বশক্তিমান স্রষ্ঠার অস্তিত্বের প্রমাণ । এটাই বোধ হয় স্রষ্ঠার শ্রেষ্ঠত, সবার শক্তি, দম্ভ, দৃষ্টিসীমা, ক্ষমতা, কল্পনার যেখানে শেষ এর ও শেষ  স্রষ্ঠার সেখান থেকে শুরু মাত্র, শেষ কোথায় সেটা কল্পনাতেও আসা অসম্ভব ।    

ভুতের পোড়োবাড়ি , সাদা কাপড়ে লোক দাড়িয়ে থাকা এসব কিছুর একটা ব্যাখ্যা থাকতে পারে বা হতে পারে এগুলো বিকৃত মস্তিষ্কের মানুষের খেয়াল মাত্র । তবে যে যুগই হোক আর মানুষ যত আধুনিক হোক উপযুক্ত পরিবেশে পড়লে ভুতের ভয় বা রহস্যময় ঘটনা  আপনাকে বা আমাকে সাক্ষী বানাতে ভূল করবেনা । যুক্তি থাকুক আর নাই থাকুক ।হোক সেটা হ্যালুসিনেশন বা ইলিউশন ।

কয়েকটা ভুতের গল্প(বিশ্বাস করতে বলিনি কিন্তু ,শুধু বিজ্ঞানমুলক একঘেয়েমী কাটানো এবং উদাহরণ ও ব্যাখ্যার প্রয়োজনে )—-

১)বিশ্বকাপ ট্রফি নিয়ে ফেসবুকে আমার পোস্ট (স্ক্রিনসট সহ ) – ব্যাপারটা বলি কাকতালীয় না কি শুধুমাত্র বাস্তবতা নাকি ভৌতিক, কি করে বলব ।বিশ্বকাপ ২০১৮ তে এসে জার্মানির বিদায়ে হঠাৎ একটা ব্যাপার খেয়াল করে স্ট্যাটাস দিলাম ।স্ট্যাট্যাস টার স্ক্রিনশট সহ দিয়ে দিলাম এখানে ।

(৮৩)

world cup

(৮৪)

পরবর্তী পৃষ্ঠা দেখুন

0Shares

Facebook Comments

error: Content is protected !!