কালোজাদু-পৃষ্ঠা-১৪৭+১৪৮

0Shares

আবার কোন শাসক তারদেশে খাবার মজুদ করে রেখে দূর্ভিক্ষ করে ইচ্ছামত দু –তিন মিলিয়ন মানুষ মারতে পারছেনা ।যেমনটা ব্রিটিশরা ভারতবর্ষে করেছিল ।এখন এ রকম হলে বিশ্বমিডিয়া জেনে যাবে, সারাবিশ্বে নিন্দার ঝড় উঠবে, হিউম্যান রাইটস, WFP (World Food Programme)সোচ্চার হবে, ত্রান বা জনমত একটা কিছু দিয়ে সমাধান হবে।এগুলোই হলো এখনকার যুগে দূর্ভিক্ষ না হবার কারণ।যদিও আফ্রিকা মহাদেশের কথাটা ভিন্ন।ওখানকার খাদ্যভাব এর কারনও ভিন্ন ।

         এখানে একটা ইন্টারেস্টিং বিষয়ে আলোচনায় আসা যাক ।বিষয়টা একান্ত আমার ধারনা থেকে আলোচনা করি ।কথাটা হলো আমাদের মানব সভ্যতা বা মানুষের উৎপত্তি সম্বন্ধে । মূলত মানুষ কত বছর আগে এসেছে পৃথিবীতে, এই বিতর্কের কোন শেষ নেই ।এটা একটা ভয়াবহ রহস্য, যার উত্তর খুজতে জন্ম নিয়েছে বিবর্তনবাদ, ফসিলতত্ব তথা অনেক মতবাদই ।আর আমাদের ধর্মমগ্রন্থের আদি মানব-মানবী তথা আদিপিতা-মাতার কথা তো উল্লেখ আছেই ।এই যেমন ধরুন ইসলাম ধর্মমতে আদম-হাওয়া, হিন্দু ধর্মমতে মনু-শতরূপা, খ্রিষ্ট ধর্মমতে অ্যাডাম-ঈভ।এতো গেলো প্রধান তিনটি ধর্মের উল্লেখিত কথা ।বিজ্ঞানীরা গবেষনালব্ধ ভাবে যেটা বলেন সেটা মূলত বিভিন্ন স্থানে প্রাপ্ত ফসিল ও বিবর্তনবাদী ব্যাখ্যার মাধ্যমে । মানুষের উৎপত্তির যত বৈজ্ঞানিক যুক্তি বা তত্ব উপস্থাপন করা হয় সবই কিন্তু প্রাপ্ত জীবাশ্ম, ফসিল, অথবা বিবর্তনবাদ নির্ভর। ডারউইন এর বিবর্তন তত্ত্ব(১৮৫৯ সালে দ্যা অরিজিন অফ দি স্পিসিস গ্রন্থে সর্বপ্রথম প্রকাশিত ) অনুযায়ী মানুষ এর পৃথিবীতে আগমন রাতারাতি কোন ঘটনা নয় । এটা এক দীর্ঘ প্রক্রিয়া মাধ্যমে এক  প্রকার প্রাইমেট বা বানর জাতীও প্রানী হতে দীর্ঘ এক বিবর্তন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে মানুষ পৃথিবীতে এসেছে ।এবং মানব আগমনের এই ইতিহাসটাও বেশ পুরাতন ও জটিল কিন্তু বুঝতে অসুবিধা হবার কথা নয় ।বিবর্তনের মাধ্যমে মানবজাতি সৃষ্টির পুরো ইতিহাস টা সংক্ষেপে এমন যে, গরিলা, শিম্পাঞ্জী, এবং হোমিনিন বংশের মধ্যে প্রাপ্ত জীবাশ্মের প্রমান হিসেবে শুরু তে প্রাপ্ত জীবাশ্ম এর প্রথম নমুনা, অর্রোরিন|

(১৪৭)

টিউগেনেসিস(০৫ কোটি ৭০ লক্ষ বছর আগের), সালেন্থ্রপাস টিচডেনেসিস (০৭ মিলিয়ন পুরনো), আর্দিপিথেকাস কাদাব্বা (৫.৬ মিলিয়ন বছর) আগের ।এই প্রজাতি গুলোর বিবর্তন শেষ হবার পর এলো হোমো প্রজাতির প্রাথমিক সদস্য হিসাবে এলো হোমো হাবিলিস(২.`৪ মিলিয়ন বছর পূর্বে), হোমো ইরেকটাস (১.৩-১.৮ মিলিয়ন বছর পূর্বে), আফ্রিকান হোমো ইরেকটাস এর বংশধররা ৫,০০,০০০(পাঁচ লক্ষ)বছর পূর্বে ইউরেশিয়াতে ছড়িয়ে পড়ে ।এভাবে আরো ক্রম বিবর্তনের মাঝ দিয়ে এসে মানুষ তার বর্তমান প্রজাতি তথা বর্তমান মানুষ হোমো স্যাপিয়েন্স (Homo Sapiens)  এ এসে পৌঁছেছে ।


(১৪৮)

পরবর্তী পৃষ্ঠা দেখুন

0Shares

Facebook Comments

error: Content is protected !!