কালোজাদু-পৃষ্ঠা-৩২৯ | MEHBUB.NET

কালোজাদু-পৃষ্ঠা-৩২৯

ফলে প্রচলিত কোন  বিতর্ক বা মিথ ইসলাম ধর্মে নেই। এবং এই ধর্মে পুরাণের মত চিত্তাকর্ষক গল্প ও রহস্য নেই । সেজন্য হিন্দুধর্মের মহাভারত ও গ্রীক ইলিয়ড নিয়ে বিশ্লেষন এলেও ইসলামধর্মের কোন পক্ষ বিপক্ষ বাদানুবাদ আনিনি । কারণ ইসলাম ধর্মের সমস্ত ঘটনা বাস্তব ঐতিহাসিক সত্য হিসেবে লিপিবদ্ধ আছে । এই ধর্মের কোন অমিমাংসীত রহস্য নেই , কোন কিছু বা কোন নগরী মিথ হয়ে যায়নি , এবং কোন কিছুই কোন ঘটনা , যুদ্ধ বা দলিল গুরুত্ব হারায়নি,  যেহেতু এটা রহস্য নিয়ে লেখা বই সে জন্য ইসলাম ধর্মের মত দিনের আলোর মত পরিষ্কার প্রমাণিত সত্য ধর্মের কোন ঘটনা লিখবার ও স্বল্পজ্ঞানে বিশ্লেষনের প্রয়োজন বোধ হয়নি ।দয়া করে ধর্মীয় বিভেদের কিছু খুজবেননা আশা করি ।কারণ পুরাণগুলো শুধু ধর্মীয় গুরুত্বের বই নয় , সুদুর অতীতে হারিয়ে যাওয়া ইতিহাসের দলিল ও বটে ।

 যদি হতাম টাইম ট্রাভেলার  

মানুষ হয়তো কোনদিন আলোর গতিতে ছোটার কোন যান আবিষ্কার করবে , হয়তো টাইম মেশিন আবিষ্কার করবে, হয়তো কৃষ্ণগহ্বর ব্যবহার করে সময় ভ্রমনকারী বা টাইম ট্রাভেলার হয়ে যাবে। কিন্তু এটা বর্তমানে শুধুমাত্র খাতা কলমে তত্ত্বগত ভাবে সম্ভব মাত্র ।বাস্তবে সম্ভবপর হওয়াটাও কল্পনার অতীত একটা বিষয় এখনো। যে যাই বলুক না কেন, যে মতবাদে বিশ্বাসী হোক না কেন , আমার ধারণা বা বিশ্বাস  এই পৃথিবীর উপর সভ্যতা যে কতবার সৃষ্টি হয়েছে ,কত সভ্যতা ধ্বংস হয়েছে, আবার নতুন করে গড়ে উঠেছে, কত সৃষ্টি এসেছে , আবার বিলুপ্তও হয়ে গেছে সত্য হওয়া সত্ত্বেও তার কোন প্রমাণ নেই, কেমন ছিল তারা, কি রুপের দেখতে ছিল কে জানে। বিজ্ঞান যে কত রহস্যের সন্ধান মানুষকে দেয়নি , এই কথাটাটাও কেউ বিশ্বাস করবেনা ।কারন বিজ্ঞান এমন একটা শাস্ত্র আর তার নীতি এমন যে সে শুধু যতটুকু বাস্তবে প্রমান করে দেখাতে পারবে শুধু সেটুকুই সত্য বলে আমাদেরকে দেখাবে , আমাদেরকে বিশ্বাস করতে বলবে , এটাই বিজ্ঞানের একমাত্র থিম  । যেহেতু আমাদের দেখা ও শোনার সীমাবদ্ধতা আছে , সেহেতু আমরা যদি কোনদিন ডাইমেনশন অতিক্রমকারী জ্ঞান কোনদিন অর্জন করতে পারি তবে আমরা অনেক কিছু দেখতে পারবো । হয়তো দেখা যাবে ডাইমেনশন

(৩২৯)

পরবর্তী পৃষ্ঠা দেখুন

error: Content is protected !!